সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

পোস্টগুলি

কেন ধনতেরাসের দিন মূল‍্যবান বস্তু কেনা হয়

 ধনতেরাস কি এবং কেন ঐ দিন মূল্যবান দ্রব‍্য কেনা হয় // 2023 সালের ধনতেরাসের তারিখ ও পুজোর সময়সূচী কার্তিক মাসের ১৩ তম দিনে কৃষ্ণপক্ষের ত্রয়োদশী তিথিতে এই পালিত হয় ধনতেরাস বা ধন ত্রয়োদশী। কালী পুজোর ঠিক আগের দিন এই উৎসব পালিত হয়। পরিবারের সকলের মঙ্গল এবং ধন সম্পদ বৃদ্ধির আশায় বহু মানুষ এইদিন কুবেরে ও মালক্ষ্মীর আরাধনা করেন। পুরান মতে এই দিন ভগবান ধন্বন্তরির আবির্ভাব হয় সমুদ্র মন্থন থেকে। তার নাম থেকেই এই দিনের নাম ধনতেরাস। এই দিন ভগবান ধন্বন্তরিরও পুজো করা হয়।এই দিন প্রত‍্যেকে কোন না কোন মূল্যবান ধাতু, যেমন সোনা,রুপো,পিতল ইত্যাদি বা বাসনপত্র অথবা নতুন পোশাক কিনে থাকেন। ধনতেরাসের দিন কেন সোনা রুপো কেনা হয় সে নিয়ে অনেক পৌরাণিক কাহিনী রয়েছে তার মধ্যে যেটি বহুল প্রচলিত সেটি হল : রাজা হিমের অভিশাপ ছিল যে বিয়ের মাত্র চার দিনের মাথায় তার সর্প দংশনে মৃত্যু হবে। তাই স্বামীকে নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচানোর জন্য নববধূ তাদের শয্যা কক্ষের বাইরে প্রচুর ধন-সম্পদ, সোনা রুপোর গয়না, বাসনপত্র সাজিয়ে রেখেছি নববধূ। যমরাজ সেখানে এলে ঘরের দরজায় গয়নার জৌলুস এবং প্রদীপের আলোতে তার চোখ ধাঁধিয়ে যায় এ
সাম্প্রতিক পোস্টগুলি

কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো

 2023 সালের কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর তারিখ ও সময়সূচী বাংলার সনাতনীদের কাছে কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো হল এক উল্লেখযোগ্য উৎসব। আশ্বিন মাসের শুক্লপক্ষের শেষে পূর্ণিমা তিথিতে কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো হয় বাংলার ঘরে ঘরে।মালক্ষ্মী হলেন ধন ও সম্পদের দেবী। তাই ধন ও সম্পত্তির আশায় বাংলার প্রতিটি হিন্দু ঘরে এই কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো হয়ে থাকে। কোজাগরী কথার অর্থ কি? এই লক্ষ্মী পুজো যে পূর্নিমায় করা হয় তাকে বলা হয় কোজাগরী পূর্নিমা। এই কোজাগরী কথার অর্থ হল "কে জেগে আছে"? কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো হয় মূলত রাতে। ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে যে এই রাতে মালক্ষ্মী প্রতিটি গৃহস্থে উঁকি মেরে দেখেন কে জেগে রয়েছেন। আর যিনি জেগে থাকেন তার হাতেই ধরিয়ে দেন ধন দৌলত। 2023 সালের কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর তারিখ এবং সময় : তারিখ : 28 অক্টোবর। বার : রবিবার। পুজোর সময়সূচী : পূর্ণিমা তিথি শুরু - 28 অক্টোবর, 2023 তারিখে 04:17 AM. পূর্ণিমা তিথি শেষ - 29 অক্টোবর, 2023 তারিখে 01:53 AM.

2023 সালের দুর্গাপুজোর তারিখ ও বিস্তারিত পুজোর সময়সূচী

 2023 সালের দুর্গা পুজোর র্নিঘন্ট দুর্গাপূজা বা দুর্গোৎসব হল মাতা পার্বতীর বিশেষ রুপ দেবী দুর্গাকে পূজা করবার  মহাপ্রচলিত একটি উৎসব। দুর্গাপূজা সমগ্র ভারতে প্রচলিত হলেও বাঙালি সমাজে এটি বিশেষ এবং প্রধান ধর্মীয় ও সামাজিক একটি উৎসব। বাংলা ক‍্যালেন্ডারের আশ্বিন এবং চৈত্র মাসের শুক্লপক্ষে মূলত দুর্গাপূজা করা হয়। আশ্বিন মাসের শুক্লপক্ষের পুজোটি প্রথম করেন শ্রীরামচন্দ্র। যা বোধন বলা হয় এবং এটিই শারোদৎসব যা বাঙ্গালীদের শ্রেষ্ঠ উৎসব। চৈত্র মাসের শুক্লপক্ষে যে দুর্গা পুজো করা হয় তাকে বলা হয় বাসন্তী পুজো। বছরে মোট চারটি নবরাত্রি আসে এবং এই চারটি নবরাত্রিতেই দুর্গা পুজো হয়ে থাকে। তবে আশ্বিন মাসের দুর্গা পুজো সবচেয়ে বেশি পালিত হয় বাংলায়। 2023 সালে মায়ের আগমন : ঘোটক। 2023 সালে মায়ের গমন : ঘোটক। ফলাফল : ছত্রভঙ্গ। 2023 সালের দুর্গা পুজার বিস্তারিত সময়সূচী : মহাষষ্ঠী তারিখ : 20 অক্টোবর। বাংলা তারিখ : ০২ কার্তিক,১৪৩০. বার : শুক্রবার। ষষ্ঠী তিথি শুরু - 20 অক্টোবর, 2023 তারিখে 12:31 AM. ষষ্ঠী তিথি শেষ - 20 অক্টোবর, 2023 তারিখে 11:24 PM. ১. বিল্ব নিমন্ত্রণ - 02:49 PM থেকে 05:08 PM.    সময়কাল - 02 ঘন্

কেন মহালয়া বাঙ্গালীদের কাছে একটি বিশেষ দিন

 What Does Mahalaya Mean // Significance of Mahalaya // 2023 Mahalaya Date and Time পিতৃপক্ষের শেষ ও দেবীপক্ষের সূচনাকালের মধ‍্যবর্তী সময়কেই বলা হয় মহালয়া। মহালয়া হল পিতৃপক্ষের শেষ দিন এবং এই তিথিকে সর্বপিতৃ অমাবস্যাও বলা হয়। মহালয়া কথাটির অর্থ হল মহান আলয়, অর্থাৎ পিতৃলোক। এদিন হিন্দু ধর্মানুলম্বী লোকেরা তাদের পূর্ব পুরুষদের ভোরবেলা তর্পন করেন,শ্রাদ্ধ করেন এবং তাদের আত্মার শান্তি কামনা করেন। এই মহালয়ার দিনটি কিন্তু কখনও শুভ দিন নয়। কিন্তু মহালয়ার দিনটি বাঙ্গালীদের কাছে একটি আনন্দের দিন। এইদিন বাঙ্গালীদের কাছে অশুভ শক্তির ওপর শুভ শক্তির বিজয়ের সূচনার দিন। এই দিনে দেবী দুর্গার মূর্তিতে চক্ষু দান করা হয়। মহালয়ার দিন দেবী তার চার পুত্র ও কন‍্যাকে নিয়ে কৈলাস পর্বত থেকে মাতৃগৃহে আসার জন্য রওনা দেন। মহালয়ার দিন ভোরবেলা প্রতিটি বাঙ্গালীর ঘরে বেজে ওঠে মহালয়া চন্ডপাঠ। মহিষাসুরমর্দ্দিনী বাজান হয় বেতারে। 2023 সালের মহালয়া কবে? তারিখ : 14 অক্টোবর। বার : শনিবার। সময়সূচী : অমাবস‍্যা তিথি শুরু : 13 অক্টোবর, সময় : 9:50 PM. অমাবস‍্যা তিথি শেষ : 14 অক্টোবর, সময় : 11:25 PM.

গণেশ চতুর্থী

 গণেশ চতুর্থী 2023 তারিখ এবং সময় // Ganesh Chaturthi 2023 Date and Time গণেশ চতুর্থী হল শিব ও পার্বতীর পুত্র বুদ্ধি,সমৃদ্ধি ও সৌভাগ্যের সর্বোচ্চ দেবতা  প্রজাপতি গণেশের বাৎসরিক পুজো উৎসব। এটা বিশ্বাস করা হয় এই দিন গণেশ তার ভক্তদের মনোবাঞ্ছা পূর্ণ করতে মর্ত্যে অবতীর্ণ হন। এই উৎসব বিনায়ক চতুর্থী বা বিনায়ক চবিথি নামেও পরিচিত। ভাদ্র মাসের শুক্ল পক্ষের চতুর্থী তিথিতে এই গণেশের পুজো বা গণেশ চতুর্থী পালিত হয়। দশদিনব্যাপী এই গণেশোৎসবের পরিসমাপ্তি হয় চতুর্দশীর দিন। গণেশ পুজো ভারতের সর্বত্র অনুষ্ঠিত হলেও মূলত এই উৎসব মহারাষ্ট্র,গোয়া,কর্ণাটক,রাজস্থান,মধ্যপ্রদেশ, তামিলনাড়ু,অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ, গুজরাত ও ছত্তিশগড় রাজ্যে বিশেষ ভাব পালিত হয়। ভারতের বাইরেও যেমন নেপালে এই উৎসব পালিত হয়। 2023 সালের গণেশ চতুর্থী কবে? Date : 19 সেপ্টেম্বর। বার : মঙ্গলবার। 2023 সালের গণেশ চতুর্থী পুজোর সময়সূচী : চতুর্থী তিথি শুরু - 18 সেপ্টেম্বর, 2023. সময় : 12:39 PM. চতুর্থী তিথি শেষ - 19 সেপ্টেম্বর, 2023. সময় : 01:43 PM. গণেশ পুজোর মন্ত্র : গণেশ পুজোর বিভিন্ন মন্ত্রগুলো জানতে নীচের Link গ

বিশ্বকর্মা পূজা কেন একই তারিখে পড়ে জানেন?

Why do we celebrate Vishwakarma Puja on 17 September // 2023 Vishwakarma Puja Date বিশ্বকর্মা পূজা হল হিন্দুদের এক উল্লেখযোগ্য  ধর্মীয় উৎসব। হিন্দু শাস্ত্রমতে স্থাপত্য দেবতা বিশ্বকর্মার  পুজো করা হয় এইদিন।তাকে এই বিশ্বের স্রষ্টা হিসাবে বিবেচনা করা হয়। বিশ্বকর্মা হলেন এই বিশ্বের সকল কর্মের সম্পাদক। তিনি সকল শিল্পের প্রকাশক। শৈল্পিক সকল কর্মের উপর বিশ্বকর্মার একচ্ছত্র অধিকার রয়েছে বলে বিশ্বাস করা হয়।পুরীর বিখ্যাত জগন্নাথমূর্তি এবং কৃষ্ণের দ্বারকা নগরী সহ অনেক কিছু তিনিই নির্মাণ করেন।তার অপর নাম স্বর্গীয় সূত্রধর। হিন্দুদের অন্যান্য সকল দেবদেবীর পুজোর সময় বা দিন নির্ধারিত হয় চাঁদের গতি-প্রকৃতির উপর কিন্তু বিশ্বকর্মা পুজো একমাএ পুজো যার সময়  নির্ধারিত হয় সূর্যের গতি প্রকৃতির। সেই নিয়ম অনুসারেই সূর্য যখন সিংহ রাশি থেকে কন্যা রাশিতে প্রবেশ করে তখন উত্তরায়ন শুরু হয় এবং  এই সময়ই বিশ্বকর্মার পুজো হয়। তাই বিশ্বকর্মা পুজোর তারিখ স্থির। প্রতি বছর একই দিনে 17 সেপ্টেম্বর পড়ে এই পুজো। এছাড়াও বিশ্বকর্মা পূজা প্রতিবছর বাংলার ভাদ্র মাসের শেষ দিনে পড়ে যা ভাদ্র সংক্রান্তি বা কন্যা সংক্রান্তি নামে

জন্মাষ্টমী

 2023 সালের জন্মাষ্টমীর তারিখ ও সময়সূচী // 2023 Krishna Janmashtami Date  জন্মাষ্টমী হল সনাতন হিন্দু ধর্মের এক অন‍্যতম একটি পবিত্র উৎসব। এই দিন ভগবান বিষ্ণু তার অষ্টম অবতার হিসেবে কৃষ্ণ রুপে এই ধরাধামে আবির্ভুত হন। তাই এইদিন শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিন হিসেবে পালিত হয়। ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে রোহিণী নক্ষত্র তিথিতে জন্মাষ্টমী পালিত হয়। এইদিন শ্রীকৃষ্ণ মাতা দেবকী এবং বাসুর্দেবের অষ্টম সন্তান হিসেবে জন্মগ্রহণ করেন। এইদিন ঘরে ঘরে শ্রীকৃষ্ণের পুজো করা হয়। 2023 সালের জন্মাষ্টমী কবে? তারিখ : 06 সেপ্টেম্বর। বার : বুধবার। নিশিতা পূজার সময় - 11:12 PM থেকে 11:58 PM. পুজোর সময়কাল - 00 ঘন্টা 46 মিনিট। অষ্টমী তিথি শুরু - 06 সেপ্টেম্বর, 03:37 PM. অষ্টমী তিথি শেষ - 07 সেপ্টেম্বর, 04:14PM. রোহিণী নক্ষত্র শুরু - 06 সেপ্টেম্বর, 09:20 AM. রোহিণী নক্ষত্র শেষ - 07 সেপ্টেম্বর, 10:25 AM. ইসকন মতে 2023 সালের জন্মাষ্টমীর তারিখ ও পুজোর সময় : তারিখ : 07 সেপ্টেম্বর। বার : বৃহস্পতিবার। নিশিতা পূজার সময় - 11:12 PM থেকে 11:58 PM. পুজোর সময়কাল - 00 ঘন্টা 46 মিনিট। অষ্টমী তিথি শুরু - 06 সেপ্টেম্বর, 03:37

নাগ পঞ্চমী 2023

 2023 তারিখ নাগ পঞ্চমীর তারিখ ও সময়সূচী // নাগ পঞ্চমী 2023 তারিখ প্রতিবছর শ্রাবণ মাসের শুক্লপক্ষের পঞ্চমী তিথিতে পালিত হয় নাগ পঞ্চমী। পৌরাণিক কাহিনি অনুসারে, মা মনসার মধ্যস্থতায় সর্প নিধন যজ্ঞের পরিসমাপ্তি হয় এই বিশেষ দিনে। এই পবিত্র দিনে নাগরাজ এবং মা মনসার পুজো করা হয় ফলে তাদের অশুভ দৃষ্টি থেকে যেমন মুক্তি পাওয়া যায় তেমনই দেবাদীদেব মহাদেবেরও আশীর্বাদ পাওয়া যায়। 2023 সালের নাগ পঞ্চমী কবে? তারিখ : 21 আগস্ট। বার: সোমবার। সময়সূচী:  পঞ্চমী তিথি শুরু - 21 আগস্ট, 2023 তারিখে 12:21 AM. পঞ্চমী তিথি শেষ - 22 আগস্ট, 2023 তারিখে 02:00 AM.

রাখী পূর্নিমা কবে?রাখী বাঁধার শুভ সময়?

রাখী পূর্নিমা কবে // রাখী বাাঁধার শুভ সময় প্রতি বছর পবিত্র শ্রাবণ মাসের পূর্ণিমা তিথিতে পালিত হয় রাখী বন্ধন উৎসব। ভারত,বাংলাদেশ সহ গোটা বিশ্বের সনাতনীরা মেতে ওঠেন এই উৎসবে।ভাই এবং বোনের ভালবাসার প্রতীক হল এই রাখী বন্ধন উৎসব। এই পবিত্র দিনে বোন তার ভাইকে রাখী বেঁধে দেয়। বোন ভাইয়ের দীর্ঘায়ু কামনা করে এবং ভাই তার বোনকে রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে থাকে। 2023 সালের রাখী পূর্নিমা কবে? তারিখ : 30 আগস্ট। বার : বুধবার। পূর্ণিমা তিথি শুরু - 30 আগস্ট, 2023 তারিখে 10:58 AM. পূর্ণিমা তিথি শেষ - 31 আগস্ট, 2023 তারিখে 07:05 AM.   রাখি বাঁধার শুভ মুহুর্ত : 09:01 PM থেকে 07:05 AM. সময়কাল : 10 ঘ: 04 মি:

গুরু পূর্নিমা বা ব‍্যাস পূর্নিমা এবং কেন পালন করা হয়

গুরু পূর্নিমা // Guru Purnima // Vyas Purnama গুরু পূর্নিমা বা ব‍্যাস পূর্নিমা আমরা প্রতিবছরই পালন করি। এই দিন আমরা গুরুকে বিশেষ সম্মান প্রদর্শন করি। আসুন জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত ভাবে এই গুরু পূর্নিমা বা ব‍্যাস পূর্নিমা সম্পর্কে এবং সঙ্গে জানব 2023 সালের গুরু পূর্নিমার সময়সূচী । আলোচনার প্রথমেই বলি গুরু পূর্ণিমা কি এবং কেন পালন করা হয়? সনাতন হিন্দু ধর্মে গুরু পূর্নিমা একটি বিশেষ দিন এবং খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি উৎসব। এই দিন গুরুকে সম্মান জানান তার শিষ্যরা। তাহলে প্রশ্ন হল গুরু পূর্নিমার দিন কোন দেবতার পুজো করা হয়? গুরু পূর্নিমা হল হল একটি গুরু মূলক উৎসব। এই দিন শিব রুপে সমস্ত গুরুকে পুজো করা হয়। ভগবান শিব আদি গুরু হিসেবে উল্লিখিত আমাদের পুরানে। শিবেরই দিব‍্য জ্ঞানে জীবকুল উদ্ধার হয় তাই তিনি পরমগুরু। পুরান মতে এই বিশেষ দিনে পরমেশ্বর শিব দক্ষিণামূর্তিরূপ ধারণ করেন এবং সৃষ্টিকর্তা ব্রহ্মার চারজন মানসপুত্রকে বেদের গুহ্য জ্ঞান দান করেছিলেন। পরমেশ্বর দক্ষিণামূর্তি শিব সকলের আদি গুরু, তাই এই বিশেষ দিনটি পরমেশ্বর শিবের প্রতি সমর্পিত। এছাড়াও এই দিনটির আরও একটি ভাবে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। এই দিনই &